৫৪ বছরেও জাতীয় প্রেস ক্লাবের সদস্য হতে পরিনি : মৃণাল চক্রবর্তী

সিনিয়র সাংবাদিক মৃণাল চক্রবর্তী। দীর্ঘ সাংবাদিকতা জীবন শেষে এখন অবসর জীবন যাপন করছেন। জাতীয় প্রেসক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়নের অফিস ঘুরেই দিন কাটে। বয়স এখন আশির ঘরে। দীর্ঘ এই জীবনে দেখেছেন ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে ভারতবর্ষ স্বাধীন হওয়া, তারপর আন্দোলন সংগ্রামের পথ পেরিয়ে স্বাধিকার থেকে স্বাধীনতা। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধেও অংশ নেন। কালের সাক্ষী এই সাংবাদিক আলাপচারিতায় জানিয়েছেন জীবনের বলা না বলা অনেক …

বাংলার ঐতিহ্য এবং রাজনীতি কি ঈর্ষার শিকার

ঈর্ষা, হিংসা অথবা রেষারিষির বিষয়টা এত ভয়াবহ যে যুগ যুগ ধরে এগুলো নিয়ে অনেক গল্প, কাহিনি, উপকথা, লেখা হয়েছে ভবিষ্যত আরো হবে। কিছু কিছু মানুষ আছে যারা আসলেই ঈর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের অধিকারী তারা ঈর্ষার শিকার হয়। কোনো দেশ যদি সমৃদ্ধশালি হয় তাহলে সেই লোভে বড় বড় পরাশক্তিগুলি ছলে বলে কৌশলে তা দখলে রাখতে চায়। যেমন ইরাককে দখল করার জন্য বুশকে কত …

সৌন্দর্য বোধের বিকাশ ও সংরক্ষণ

শিল্পকলা আমাদের এবং আমাদের সন্তান-সন্ততিদের গভীর এবং সুক্ষভাবে সবকিছু দেখতে শেখায়। কিন্তু শিল্পকলা উপলব্ধির জন্য সুনির্দিষ্ট প্রস্তুতিরও প্রয়োজন আছে। ঠিক সেই জন্যেই আমাদের ছেলেমেয়েদের মধ্যে বোধশক্তি গড়ে তোলা উচিৎ। সৌন্দর্য উপলব্ধি করার প্রকৃতি প্রদত্ত মহা মূল্যবান এই ক্ষমতাটি বিকশিত করা উচিৎ। মানুষের সৌন্দর্য বোধ বিকাশ করা এমন এক বিষয়, যাতে ওতপ্রোতভাবে একদিকে জড়িত রয়েছে, শিল্পকলা বিষয়ক বিজ্ঞান তথা কান্তিবিদ্যা, আর …

যে নেতা প্রতিবাদের ভাষা তৈরি করেন

এক. কোনো কিছুতে আর আগের স্বাদ নেই। মানুষের মধ্যে আর আগের মতো আবেগ মহব্বতও নেই। জলবায়ুর মতোই সবকিছু পাল্টে গেছে। একদিকে বৃষ্টি হচ্ছে তো আরেকদিকে চেনা সুরে কোকিল ডাকছে। মানুষ ঘুরে তাকায় আর ভাবে মুঠোফোনের শব্দ বুঝি। আসলে কোনোকিছুতে মানুষের আর বিশ্বাস নেই। বিশ্বাস শব্দটিও পাল্টে গেছে। মানুষ এখন হামেশাই বলে কাউকে বিশ্বাস করেছো তো মরেছো। সবকিছুর প্রতি অবিশ্বাস অনাস্থা …

যুদ্ধবিধ্বস্ত অর্থনীতি ও সমাজ পুনর্গঠনে বঙ্গবন্ধুর প্রয়াস

যুদ্ধবিধ্বস্ত অর্থনীতি ও সমাজ পুনর্গঠনে দেশপ্রেম, মানবপ্রেম, সর্বোচ্চ মাত্রার নীতিবোধ ও মূল্যবোধ, জ্ঞান, মেধা, মনন, ধীশক্তি, সাংগঠনিক দক্ষতা সবকিছু দিয়ে বঙ্গবন্ধু সর্বাত্মক চেষ্টা করলেন। আমার ধারণা মুক্তিযুদ্ধের পূর্বের ৩৩ বছরের রাজনৈতিক জীবনে তিনি জনগণের অধিকার আদায়ের আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে ‘শেখ মুজিব’ থেকে ‘বঙ্গবন্ধু’ (১৯৬৯ সালে) আর ‘বঙ্গবন্ধু’ থেকে ‘জাতির পিতা’ (১৯৭১ সালে)- রূপান্তরিত হতে সম্ভাব্য যত ধরনের মেধা-মনন-ধীশক্তি-শ্রম ব্যয় করেছেন তার …

বাঙালি নারীর পোশাক ও শালীনতা

ছোটবেলায় প্রবাদ শুনেছিলাম- “আপ রুচি খানা পর রুচি পরনা” একজন পূর্ণবয়স্ক নারী যেমন মন চাইবে তেমন পোশাক সে পরতে পারে। তার যুগের সাথে তাল মিলিয়ে পোশাক পরার স্বাধীনতা অবশ্যই আছে। তা যেন হয় শালীন পোশাক। মনে রাখতে হবে আমরা বাঙালি। আদর্শ নারীদের অনুসরণ করেও আমরা পোশাক নির্বাচন করতে পারি। আবার ছাত্রী বা কর্মব্যস্ত নারী পোশাক পরবে তাদের সুবিধামত। আমার মা …

প্রিয় নায়ক রাজ্জাক

১৯৬৬ সালে মুক্তি পেল বেহুলা চলচ্চিত্র। নায়ক রাজ্জাক। আমি তখন ক্লাস সেভেনে কি এইটে পড়ি। দুর্দান্ত সিনেমা পাগল। সদরঘাটের রূপমহল সিমেনা হলে গিয়ে ওই সিনেমা দেখেছিলাম। সিটের ওপর পা তুলে ভয়ে ভয়ে ওই সিনেমা দেখতে হয়েছিল, সাপভীতির কারণে। কিন্তু সিনেমা দেখে যেন আওয়ারা হয়ে গেলাম। দারুণ এক নায়ককে দেখলাম। তারপর রাজ্জাক অভিনীত কোনো সিমেনা বাদ দিয়েছি এমন মনে পড়ে না। …

বঙ্গবন্ধু হত্যা: জাসদের কান্না ও কাফ্ফারা

গত ৭ আগস্ট জাসদ নেতা মাঈনুদ্দিন খান বাদল চট্রগ্রামের বোয়ালখালির শোকসভায় বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ করতে গিয়ে আবেগ তাড়িত হন, কান্নাকাটিও করেন। এর আগে দুই হাজার চৌদ্দ সালে জনাব বাদল স্বীকার করেছিলেন ‘তারা বঙ্গবন্ধু হত্যার কাফফারা দিচ্ছেন’। বক্তব্য দু’টি সাধারণ প্রকৃতির হলেও এর মর্ম কিন্তু অনেক গভীরে। একথা বলার অপেক্ষা রাখেনা বঙ্গবন্ধুর সাথে একসঙ্গে চলতে না পেরে যুদ্ধ থেকে ফিরে আসা একঝাঁক …